19.1 C
New York
Monday, May 27, 2024
spot_img

দ্য ইলেভেন্থ কমান্ডমেন্ট

‘এক “প্রফেশনালদের প্রফেশনাল” এর রোমাঞ্চকর ভ্রমণ-আখ্যান’

কনর ফিটযেরাল্ড। সিআইএ’র উজ্জ্বল নক্ষত্র। সিআইএ-তে যাকে সম্বোধন করা হয় প্রফেশনালদের প্রফেশনাল; সেই ফিটযেরাল্ডের প্রধান শত্রু কিনা সিআইএ’রই ডিরেক্টর ‘হেলেন ডেক্সটার’!

চরম ইগোপন্থি এ মহিলা কূটবুদ্ধির আশ্রয় নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বানোয়াট নির্দেশনা ফোনে শুনিয়ে কনরকে পাঠালেন কলম্বিয়ার হবু প্রেসিডেন্টকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে। পরম প্রফেশনালিজমের পরাকাষ্ঠা দেখিয়ে ‘খুন’ কর্মটি সফলতার সাথেই সম্পাদন করল ফিটজেরাল্ড। এরপরই সূত্রপাত হলো মূল নাটকের।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট সিআইএ-প্রধানকে নির্দেশ দিলেন, তিনি শিঘ্রই যেন প্রমাণ করেন কলম্বিয়ার হবু প্রেসিডেন্টকে হত্যাকার্যে সিআইএয়ের আদৌ কোনো হাত নেই। হেলেন প্রমাণ করতে উঠে-পড়ে লাগলেন; এবং তা করতে গিয়ে তছনছ করেই ছাড়লেন তাঁর এজেন্ট কনর ফিটযেরাল্ডের জীবন।

বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর জানার ছিল; যেমন- পৃথিবীর ভয়ংকরতম কারাগার রাশিয়ার ক্রুসিফিক্স কারাগার থেকে ফিটযেরাল্ডের নিস্তার পাওয়ার কোনো উপায় রয়েছে কি? হেলেন ডেক্সটারের মিথ্যে অহমিকা কি শেষমেশ গুঁড়িয়ে দিতে পেরেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট? কিংবা হিটলারসদৃশ রাশান প্রেসিডেন্ট কি আদৌ পেরেছিলেন সেন্ট পিটার্সবার্গের মাফিয়া কিং এর সাম্রাজ্য সমূলে ধ্বংস করতে? সেসব কৌতুহলোদ্দীপক প্রশ্নের সাবলীল উত্তর আপনারা অতি অবিশ্যিই পেয়ে যাবেন হালের একজন খ্যাতিমান থ্রিলার লেখক ‘জেফরি আর্চার’ এর রুদ্ধশ্বাস এ স্পাই থ্রিলারে।

‘দ্য ইলেভেন্থ কমান্ডমেন্ট’ বইটিতে কিছু বানান ত্রুটি লক্ষ্য করা গেছে। পরবর্তী সংস্করণে বানানগুলো ঠিক করার আহবান জানানো হলো অনন্যা প্রকাশনীর সম্পাদনা পর্ষদকে।

ধ্রুব এষ এর প্রচ্ছদটি ছিল এককথায় অতুলনীয়। তবুও বোধ হলো, প্রখ্যাত প্রচ্ছদশিল্পী ধ্রুব এষের ‘টিপিক্যাল ধ্রুব এষ’ প্রচ্ছদ মিসিং যেন; যেখানে থাকে জলরঙ, তেলরঙ, রঙতুলির আঁচড়ের অপূর্ব সমন্বয়।

‘দ্য ইলেভেন্থ কমান্ডমেন্ট’ যখন পাঠক আপনারা পড়া শুরু করবেন, নিশ্চিতভাবেই মনে প্রশ্নের উদ্রেক ঘটবে, বইয়ের শিরোনাম এর এ তিনটে শব্দের মানে কী? এটিকে সিআইএ’র ১টি অলিখিত নিয়মই বলা চলে যা একজন সিআইএ এজেন্টকে জীবন-মরণের সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়েও পালন করা অত্যাবশ্যক-

‘তুমি কখনো ধরা পড়বে না। যদি ধরা পড়েই যাও, সিআইএ’র সঙ্গে যে তোমার সম্পর্ক ছিল তার কথা বেমালুম অস্বীকার করবে। চিন্তা কোরো না- কোম্পানি সবসময় তোমার খেয়াল রাখবে।’

অনুবাদক শ্রীমান অনীশ দাস অপু’র কথা না বললেই নয়। তাঁর অতুলনীয় শব্দচয়নপূর্ণ অনুবাদে বইটি পেয়েছে অন্যমাত্রা। সংশ্লিষ্ট বইয়ে তাঁর একটি সৃষ্টিশীলতায় পরিপূর্ণ বাক্যের উল্লেখের লোভ সামলানো গেল না-

‘যখন বুঝতে পারলেন দর্শকদের কাছ থেকে প্রশংসার প্রতিটি আউন্স দুইয়ে নিয়েছেন, তিনি তাঁর সঙ্গী-সাথীদের নিয়ে মঞ্চের সিঁড়ি বেয়ে নেমে এলেন নিচে।’

‘দ্য ইলেভেন্থ কমান্ডমেন্ট’ বইখানা বাংলাবাজারের অনন্যা প্রকাশনী থেকে সংগ্রহ করতে পারেন, তাছাড়াও রকমারি ডট কম থেকেও অনায়াসে সংগ্রহ করতে পারবেন।

হ্যাপি রিডিং। মোবাইল বা অন্য ডিজিটাল মাধ্যম নয়; বইপড়া মাধ্যম হোক অবসরের নিত্যসঙ্গী!!!

একবনজরে ‘দ্য ইলেভেন্থ কমান্ডমেন্ট’—

বইয়ের নাম: দ্য ইলেভেন্থ কমান্ডমেন্ট

জনরা: স্পাই থ্রিলার

লেখক: জেফরি আর্চার

রূপান্তর: অনীশ দাস অপু

প্রকাশনা: অনন্যা

মলাট মূল্য: ৫৫০ টাকা

রিভিউ লেখকঃ জাবের রহমান

Facebook Comments Box

বিষয় ভিত্তিক পোস্ট

শহীদুল ইসলামspot_img

সাম্প্রতিক পোস্ট