7.3 C
New York
Saturday, March 2, 2024
spot_img

রোমানদের কবরস্থানগুলো শহরের বাইরে কেন?

রোমানদের কবরস্থানগুলো শহরের বাইরে কেন? কবরস্থানগুলি সর্বদা শহরগুলির বাইরেই তৈরির  করা হয়েছিল কারণ ছিল রোমানদের স্বাস্থ্য ও পরিবেশ  এবং ধর্মীয় কারণে শহুরে কেন্দ্রগুলির মধ্যে কবর দেওয়া নিষিদ্ধ করেছিল। Isola di San Michele। এই আইল্যান্ড টা পুরুটাই কবরস্থানের । মনে হবে  একটি উন্মুক্ত জাদুঘর। কবরস্থানে বিখ্যাত ব্যক্তিদের এবং ইতিহাস ও শিল্পের অসংখ্য সাক্ষ্য রয়েছে। লেখক, রাষ্ট্রনায়ক, ইতিহাসবিদ, রাজনীতিবিদ, শিল্পী, নায়ক এবং ফুটবলার: এমন অসংখ্য চরিত্র রয়েছে যারা কেবল শহরেরই নয়, সমগ্র দেশের ইতিহাস ও সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করেছে এবং তারা আজ ভেনিসীয় কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন। কবরস্থানের অভ্যন্তরে পরিবেশ টা শান্ত ছিমছাম।

ভেনিসের ক্যানারেজিও জেলা থেকে পানির  ওপারে, একটি লাল দেয়াল ঘেরা দ্বীপে শহরটি যেন  মৃতদের বাড়ি। ভেনিস বাসিদের কবরস্থানটি ১৮০০এর দশকের শুরু থেকে একমাত্র সরকারী খ্রিস্টান কবরস্থান।১৭৯৭ সালে যখন স্বাধীন প্রজাতন্ত্র ভেনিস নেপোলিয়নের হাতে পড়ে, তখন বাসিন্দাদের অনেক কিছু পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়-নেপোলিয়ন দাবির যার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ছিল ইহুদি নামের ঘেট গেটগুলি অপসারণ করা, এবং ঘোষণা করে যে মৃতদের আর শহরের মধ্যে দাফন করা যাবে না। বিদ্যমান ঐতিহ্য ছিল গীর্জায় বা শহরের পাকা পাথরের নিচে মৃতদের দাফন করা, যা সে সময়ের বেশিরভাগ শহরের মানদন্ড অনুযায়ী স্যানিটেশন ব্যাবস্থা  কম ছিল, এবং একটি শহর যেখানে বছরে কয়েকবার বন্যা হয় সেখানে অবশ্যই  এটি একটি সমস্যা।

ভেনিসে অনেক প্লেগের শিকার মানুষ কে  প্রত্যন্ত দ্বীপে নির্বাসন দেয়াহতো যা প্রায়শই তাদের জিবনের  মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই।

আধুনিক দ্বীপটি দুটি ছোট দ্বীপের সমন্বয়ে গঠিত, যা ১৮৮৬ সালে খালের ধারে মিলিত হয়েছে। এটি ১৪৬৯সালে বিখ্যাত স্থপতি মাউরো কদুসির ডিজাইন করা ।খ্রিস্টান ধর্মের প্রধান দেবদূত মাইকেলের  (মুসলিমদের মিখাইল আঃ)নামে  উৎসর্গ করা হয়।ভেনিসিয়ান রেনেসাঁ গীর্জায় প্রভাব ছিল ।সেই যুগের ল্যান্ডমার্ক, পিয়াচ্ছা  সান মার্কোর বিশাল ক্লক টাওয়ার সহ গির্জা এবং চ্যাপেল, ফেরি ঘাট থেকে দ্বীপের প্রবেশদ্বার সংলগ্ন। 

কবরস্থানের প্রবেশদ্বারটি পুরানো গির্জার আদলে এবং কবরস্থানগুলি ক্যাথলিক কবরগুলির জন্য বেশিরভাগ    বরাদ্ধ ।কিছু অংশের অংশের বিভক্তি চোখে পরার মত ।ছোট অংশগুলি গ্রীক অর্থোডক্স, বিদেশীদের জন্য এবং প্রোটেস্ট্যান্টদের জন্য। কিছু ছোট অংশগুলি শিশুদের কবর এবং গন্ডোলিয়ারদের জন্য উত্সর্গীকৃত। লিডোতে ইহুদি বাসিন্দাদের আলাদাভাবে কবর দেওয়া হয়েছিল।

মাঠগুলি সবুজ এবং বিস্তৃত, আধুনিক সমাধির পাথরের সারি দিয়ে আচ্ছাদিত এবং মূর্তি, গাছ এবং মাঝে মাঝে একটি ছোট পারিবারিক সমাধিতে দেখতে পাওয়া যায়। এটি আধুনিক সমাধিস্থল। প্রতি বছর ফেস্তা দে মর্তি বা অল সোলস ডে (নভেম্বর 2), স্থানীয়রা মৃতদের স্মরণে অনুস্ঠান করে থাকে। কবরস্থানেঘুরে দেখতে পারেন বিনামূল্যে। ঐতিহ্যবাহী  দ্বীপের দর্শনার্থীদের মনে রাখা উচিত যে দ্বীপে অনেক সমাধি সাম্প্রতিক, এবং স্থানীয়রা শোকে থাকতে পারে। তাই শালীন পোশাক এবং শান্ত কণ্ঠ অর্থাৎ  চুপচাপ থাকা অবশ্যই কর্তব্য ।

–শহীদুল ইসলাম

Facebook Comments Box
শহীদুল ইসলাম
শহীদুল ইসলামhttps://protiddhonii.com
একজন প্রবাসী বাংলাদেশী লেখক ও গবেষক। দীর্ঘদিন ইতালিতে বসবাস শেষে বর্তমানে বামিংহামে পরিবার সহ বসবাস করছেন। ঘুরতে ভালোবাসেন আর ইতিহাস ঐতিহ্যের প্রতি রয়েছে প্রবল আগ্রহ।

বিষয় ভিত্তিক পোস্ট

শহীদুল ইসলামspot_img

সাম্প্রতিক পোস্ট