10.5 C
New York
Sunday, March 3, 2024
spot_img

কবিতা

শংকিত সুখ চাই না!

এমন স্বাধীনতাও কভু চাই না যেখানে মুক্তকণ্ঠে আওয়াজ তোলা যায় না।

জীবন ব্যথা

একুলেতে ঘুরি আবার ওকুলেতেই যাই বগলেতে জীবন বৃত্তান্ত চাপাই ঠাই নাই ঠাই নাই জীবনেতে কুল নাই

যদি ফিরি

শালিকের মতো উড়বো ধান ক্ষেতে খেলবো ঘাসের ডগায়

অভিমান 

হাসিমাখা মুখের দৃষ্টিতে কিংবা চরম রাগের ছোট্ট দিনগুলোতেও তুমি থাকো অভিমানে সারাক্ষণ।

ঝরাপাতা

পত্রজালিকার মৃতকোষে অনন্তের বেদনার গান। বারান্দায় বসে ঝরাপাতার ক্রন্দন শুনি একান্ত নির্জনে।

ভাষার অপব্যবহার

একুশের চেতনা ছিল সোনার বাংলায় নিজ ভাষাকে প্রতিষ্ঠা করবার, অর্ধশত বছর পরেও কেন চতুর্দিকে শুধু ভাষার অপব্যবহার!

ফুলে ফুলে প্রজাপতি

ছোট ছোট পিঁপড়ে দল বেঁধে হাঁটে রুই, শিং, কৈ-মাছ ধরা দেয় ঘাটে৷

হিমেল হাওয়া

হার মানা গাংচিলের সুরে গাইছো ডানা ভাঙা ঘুঘুর মতো পথ হারিয়েছো।

সফলতার পথ 

নিজেকে তৈরি করুন, গড়ে তুলুন লোহার ন্যায় কঠিন।

ঘন মেঘ

তবুও বেঁচে থাকে কিছু কিছু স্বপ্ন আঁধারের প্রদীপ হয়ে হাসি আর কান্নায় বুকে বাঁধা প্রত্যয় ভাঙাপায়ে যাচ্ছে এগিয়ে।

হৃদয় খুঁড়ে ঈষে

ভাবলে তোমায় হৃদয় খুঁড়ে যেমনে মাটি খুঁড়ে চাষার ঈষ।

উইপোকারা খাচ্ছে বই

কবি হবার জন্য আজ লম্বা লাইন শহর কেন্দ্রিক হলেই বুঝি! কবি হওয়া যায়?

বিচিত্র রসায়ন

যৌবন জলতরঙ্গে হবো না কারো চক্ষুশূল! স্বপ্ন সম্বল করে হৃদয়াবেগের

আমি সরষে ফুল

সবুজ গাছের পাতার মাঝে থোকা হয়ে ফুটে থাকা হলুদ ফুল

আমার সন্তান

পৃথিবীর মমতা মিথ্যার রঙিন প্রহেলিকায় জড়ানো থাকে সব মাধুরিমা চাপা ক্রন্দনের মিহি উষ্ণতায় মলিন বিবর্ণ

শীতের সকাল

কে যাবি আয় ভোর সকালে রসের পিঠা খেতে

মা

তুমি আমার কাছে মহিয়ানের অপরূপ শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি,

দৃষ্টির সীমানা ছাড়িয়ে

দূর হতে নিকটে অচেনা লোকালয়ে তোমার অনুসন্ধানী দৃষ্টির পরিসীমা কতদূর?

নতুন বছর

অতীত স্মৃতি অতীত কথা মুছে ফেলো গ্লানি

শেষ চিঠি

ছয়টা বছর পার না হতেই বিদায় নিলে তুমি,রেখে গেলে আমার কোলে তোমার ছোট্ট রুমি

শুধু একটা মন লাগে

পথের ধারে ধুকছে যে জন ভাবো আপন জন লাগে

হৃদয় হরিণী

আমি হারাতে হারাতে একদিন তেপান্তর পাড়ি দেব-তোমাকে খুঁজব

হাল ধরো নাবিক

দীপ্ত সূর্য তারকার দল পথ খুঁজে নাজেহাল কালের অশ্ব ছুটে চলে দ্রুতবেগে

চড়ুইভাতি

শীতের রাতে খোকাখুকু করছে চড়ুইভাতি।

নিয়তির পরিহাস

সুখের আশায় ঘানি টেনেও দহনে পোড়ে বারো মাস।

লাগামছাড়া

মাথার ঘাম পায়ে ফেলে ফলায় যারা শস্য, তাদের ভাগ্যে জোটে শুধু পান্তা ভাতের কষ্ট !

রূপকথার মাঠ

কে যেন দাঁড়িয়ে মাঠের ওই শেষে, লেজ ঝোলা বট গাছ ডাকে তার পাশে।

সিরিয়ান কবি ‘আল-আহমদ’-এর দুটো কবিতা

সেই স্বপ্নগুলো যা শেষ দৃশ্যটা কেমন হবে তার কল্পনা আর সাত স্তরের আকাশ। কেন তুমি জিনিসগুলি নিয়ে দীর্ঘকাল ভাবলে না?

অসহায়ত্ব

তমসাচ্ছন্ন রাতের দুরন্ত দেহ'জুড়ে শুধু অসহায়ত্বের ক্ষতচিহ্ন-আবির হাসান

আলাম নাশরাহ

এই দুর্দিন হবে অবসান সুদিন আসবে ফিরে।

শতাব্দী থেকে শতাব্দী

আকাশচুম্বী বৃক্ষের বুকে যেভাবে, জড়িয়ে থাকে নরম লতাপাতা।

উদ্দেশ্য

মঙ্গল-সিন্ধু সাক্ষী,, সাক্ষী !সেই ফিরাউনের দল।তোমার এই দাপটের প্রদীপ নিভে যাবেই একদিন।

স্বপ্ন দেখি

- নুর তাহেদ রিহানআকাশ জুড়ে,স্বপ্নেরা ঘুরে!আলোর পথে, স্বপ্নেরা ভিড়ে!অশ্রু নয়নে ,স্বপ্ন দেখিয়ে!হারিয়ে বেড়ায় অচিনপুরে!স্বপ্ন মোর সামনে রেখে,ঘুরে-বেড়ায় উদার মনে!প্রভাত ফেরিয়ে দিন গুলোস্বপ্ন মোর...

এখানে নদী নেই

এখানে নদী নেই,আছে ছড়াছন্দের ছড়া নয়,জলের ছড়া।এখানে হাতছানি দেয় আকাশমধ্য দুপুরে রোদ উঠে কড়া।ঝিমায় বুনোফুল ডাকে ঝর্নাজলের কলকল শব্দের বাজনা,সুর তুলে গহীন বনের শালিকপাহাড় দেয় ধূলোর খাজনা।এখানে নদী নেই আছে...

আওয়াজহীন শব্দমালা

পুকুরের কাছে খাল নদী,বিল সমুদ্র।নদীর কথা সে ভাবেনি,সমুদ্র তার কল্পনারও বাইরে। ২..গ্রীষ্মের মর্ম জানে মেঘ,বৃষ্টির মর্ম জানে চাষা।গাছের মর্ম জানুক মানুষএটুকু প্রকৃতির আশা। ৩.সাগরের পানিকে মিঠা...

ডিসেম্বর মাসের এক গুচ্ছ কবিতা

আসছে ডিসেম্বর এস এম আসাদুর রহমান --------------------------------------------------------------------------- উড়ছে বিজয়ের নিশানা সকলেই দেখছে যেন - পূর্ণিমা চাঁদের জোসনা। দৌড়ে আসি বুকে কস্ট - মুখে হাসি। বাজনা কই? বাজা...

মেঘবৃষ্টি

তমালিকা দত্ত ঝর ঝর করে বৃষ্টি ঝড়ছে একপাল মেঘ জানান দিয়ে যাচ্ছে,  আজ আর রোদ...

স্মৃতিচারণ

ইফফাত আরা ঐশী আমি তো সেই কবেই আত্মসমর্পণ...

জিউসের ঈগল

আনুগত্যের উদাহরণ প্রতি বসন্তে কবির গলা কেটে উপহার দিতে হয় রাজা জিউসকে গলা থেকে গলগল করে বেরিয়ে আসে পাহাড় কবি জ্যান্ত হয়ে ওঠে পরের বসন্তে আর...

নাইমুল ইসলামের একগুচ্ছ কবিতা

"পোড়া লাশ" কলমেঃ নাইমুল বাঁশের ভেলা, বাঁশের দোলা চারিদিকে শুধু বাঁশ মাঝখানে তার শুয়ে থাকে একটা মরা লাশ । বানিয়ে পঞ্চগুণ সিন্ধু-বিন্দু অতি নিপুণ বাঁশে...

জাকির আলমের গুচ্ছ কবিতা-২

এখনো প্রতীক্ষায় থাকি এখনো মাঝ রাতে হৃদয়ের দ্বার খুলে প্রতীক্ষার অবসানে তোমাতে হারাই। এখনো সন্ধ্যাপ্রদীপ জ্বালিয়ে পূজার অর্ঘ্য সাজিয়ে স্মৃতির নদী সাঁতরে বেড়াই। এখনো বিরহ মনে অনিয়মের হাত...

নভেম্বর সংখ্যার কবিতাগুচ্ছ

অভাব || সোহেল রানা  অভাবআমার স্পর্শ করেনি বাস্তবিকই।  (বন্যা,দুর্ভিক্ষ ও খরার মত কোনও অপায়)  অভাবনাস্তি ভাতমাছ পোশাক আশাক ও                   ...
Stay Connected
3,000FansLike
শহীদুল ইসলামspot_img
পাঠকপ্রিয় লেখা
Facebook Comments Box